আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

“আজব বড়াই”

“আজব বড়াই”
বারীন্দ্র দেবনাথ ছোটন

পাশের ঘরের মানুষ যদি
থাকে অনাহারে
কি লাভ হবে আমার
ধনের বড়াই করে।।
আমি হলাম গুনী মানুষ
বাকী সবাই মন্দ
অতীত যদি খুজি আমার
পাব কত গন্ধ।।
মামার বাড়ীর গল্প যদি
মায়ের কাছে বলি
ব্যঙ্গগীতি গাইবে সবাই
লাগবেনা আর ঢুলি।।
হীনমন্য লোক যদি
ধনী হয়ে যায়
বাপ দাদার নাম ভুলে
ভূতের গান গায়।।
নিজের গুদাম পূর্ণ করি
সবার ক্ষতি করে
সামনে সালাম দেয় সবে
পিছে থু থু মারে।।
আজব হলেও সত্যি কথা
বলতে লাগে ভয়
কোটিপতি হয়ে কেউ
বাপকে সার্ভেন্ট কয়।।
নিজে নিজে মহাজ্ঞানী
ভাবি আমি যখন
হামসে বড়া কৌন হ্যায়
হয়ে যাই তখন।।
নিজের নাম ফোঁটাতে আমি
লাগাই নানা টাইটেল
অল্পদিনের জন্য খুঁজি
সস্তা চায়ের হোটেল।।
স্বার্থসিদ্ধি হলে পরে
শহরে দেব পাড়ি
ভূলে যাব অতীত কথা
বাপের ভিটে বাড়ী।।
আমার গ্রামের মানুষ যখন
কাদাজলে হাঁটবে
চাকার গাড়ী চড়ে আমার
বড়াইটাও বাড়বে।।
আজব রীতির আজব বড়াই
করতে লাগে বেশ
মনে যা চায় তাই লিখি
গুনের নাই শেষ।।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ