আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :
«» ঝিকরগাছা শংকরপুরে জাতীয় শোক দিবস পালিত «» প্রশ্ন ফাঁস: জনতা ব্যাংকের পরীক্ষা ফের নেওয়ার নির্দেশ «» ভুটানকে উড়িয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা «» অটলবিহারী বাজপেয়ী আর নেই «» হোমনা-তিতাসে অধ্যক্ষ আবদুল মজিদ নেতৃত্বে শতাধিক শোক দিবস অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ «» বেসরকারি শিক্ষকদের ঈদ উৎসব «» কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছে সর্বস্তরের মানুষ «» সিন্ডিকেটের খপ্পরে ১৩৫৩ কোটি টাকার প্রকল্প «» সাংবাদিক পরিবারে ১ লাখ টাকা অনুদান দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন নরসিংদী-৪ আসনের এমপি «» “শিক্ষাবিস্তার ও বেকারত্ব হ্রাসে কিন্ডারগার্টেনের অবদান”

উইন্ডিজকে হারিয়ে সিরিজ জয় টাইগারদের

অনলাইন ডেস্ক

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি২০ সিরিজের শেষ ম্যাচে বৃষ্টি আইনে ১৯ রানের জয় পেয়েছে টাইগাররা। ওয়ানডে সিরিজের পর টি২০ তেও ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ। যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় বাংলাদেশ দুই ম্যাচ খেলে দুটিতেই জয় পেয়েছে। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় বৃষ্টির মধ্যেই সিরিজ জয়ের উল্লাস সেরেছে বাংলাদেশ টাইগাররা।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ। ফ্লেচার-রাসেলদের সামনে ১৮৫ রানের লক্ষ্য দেয় সাকিব আল হাসানের দল। দুই ওপেনার তামিম-লিটনের ভালো শুরু এবং মাহমুদুল্লাহর শেষের দৃড়তায় ৫ উইকেটে ১৮৪ রান তুলতে পারে বাংলাদেশ।
দলের হয়ে ৩২ বলে ৬১ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন লিটন দাস। ফিরে যাওয়ার আগে লিটন ৩টি ছয়ের পাশাপাশি ৬টি চারের মার মারেন। এছাড়া অন্য ওপেনার তামিম করেন ১৩ বলে ২১ রান। শেষে মাহমুদুল্লাহর অপরাজিত ২০ বলে ৩২ এবং আরিফুলের ১৬ বলে ১৮ রানের সুবাদে ১৮৪ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।
উইন্ডিজের হয়ে ৩ ওভারে ২৬ রানে দুই উইকেট নেন কেমো পল। এছাড়া দলটির অধিনায়ক কার্লোস ব্রাফেট ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৩২ রানে ২ উইকেট নেন।
বাংলাদেশের দেওয়া লক্ষ্যের জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৭.১ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩৫ রান তোলে। এরপর বৃষ্টি নামলে বৃষ্টি আইনে বাংলাদেশ ১৯ রানের জয় পায়।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের ৩.৫ ওভারে ফ্লেচারকে সীমানায় নাজমুলের ক্যাচে পরিণত করেন মুস্তাফিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৬ রানে হারায় প্রথম উইকেট। এরপর আরেক ওপেনার ওয়ালটন ১৯ রানে ফিরে যান সৌম্য সরকারের বলে। নিজের প্রথম ওভারে এসেই উইকেট তুলে নেন সাকিব আল হাসান। ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলে মারলন স্যামুয়েলকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরান তিনি।
তবে রোভম্যান পাউয়েল এবং দিনেশ রামদিনের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দু’জনের ব্যাট থেকে আসে ৩৫ রানের জুটি। রুবলে হোসেন দলের ১২তম ওভারে রামদিনকে বোল্ড করে দেন। তিনি ১৮ বলে ২১ রান করেন। তার আউটের পর ক্রিজে আসেন আন্দ্রে রাসেল। মারকুটে এই ব্যাটসম্যান এসেই ঝড়ো শুরু করেন। ২১ বলে ৪৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন তিনি। এরপর মুস্তাফিজের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রাসেল। তার আগে রোভম্যান পাউয়েল ২০ বলে ২৩ এবং ব্রাফেট ৫ বলে ১০ রান করে ফেরেন।
বাংলাদেশের হয়ে ৩.১ ওভারে ৩১ রানে ৩ উইকেট নেন মুস্তাফিজ। এছাড়া ৪ ওভারে ২২ রানে ১ উইকেট নেন সাকিব। রুবেল হোসেনও ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৮ রানে ১ উইকেট নেন। বাংলাদেশের হয়ে দ্রুততম ফিফটি করা লিটন দাস ম্যাচসেরা খেলোয়াড় হন। বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিবের হাতে ওঠে সিরিজ সেরার পুরস্কার।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ