আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :
«» জলাতঙ্ক থেকে বাঁচার উপায় «» সাহিত্যের আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে মোস্তফা কামালের ‘থ্রি নভেলস’ «» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাসের প্রতিবাদে পটুয়াখালীর বাউফলে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সামবেশ «» দুমকিতে ডাব খাওয়ার অপরাধে দু’ছাত্রকে মারধর,শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, ধাওয়া-পাল্টা «» কলাপাড়ায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রচার ও উন্নয়ন ভাবনা শীর্ষক মতবিনিময় সভা «» স্বরুপকাঠীতে শিক্ষক সমিতির ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত «» নদী বিষয়ক বইমেলা উদ্বোধন «» নরসিংদীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন «» ঢাকায় সাপের দংশনে প্রাণ গেল কলেজছাত্রের «» লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

কানাডার পাঠ্য বইয়ে ড. ইউনূস

অনলাইন ডেস্ক

শান্তিতে নোবেল জয়ী প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ও তার প্রতিষ্ঠিত গ্রামীণ ব্যাংকের কাহিনী এখন কানাডার সপ্তম শ্রেণির জাতীয় পাঠ্যক্রমের অংশ। কানাডার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রদের একটি পাঠ্যবই হচ্ছে ‘কমপ্লিট কানাডিয়ান কারিক্যুলাম গ্রেড ৭’ যেখানে ছাত্ররা গণিত, ইংরেজি ভাষা, ইতিহাস, বিজ্ঞান ও ভূগোল বিষয়ে জ্ঞানলাভ করে থাকে। প্রফেসর ইউনূস ও গ্রামীণ ব্যাংকের কাহিনী ইংরেজি পাঠ্যবইতে সন্নিবেশিত হয়েছে।

গতকাল ইউনূস সেন্টারের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, পাঠ্যবইতে লিখিত কাহিনীতে তুলে ধরা হয়েছে- ‘কীভাবে প্রফেসর ইউনূস বাংলাদেশের একটি দরিদ্র গ্রামে যান এবং সেখানে এক মহিলার সাক্ষাৎ পান যে বাঁশের মোড়া তৈরি করতো, কিন্তু বাঁশের উচ্চ দাম ও গ্রামের মহাজনদের উচ্চ সুদের কারণে আর্থিকভাবে হিমশিম খাচ্ছিল। আর তখনই প্রফেসর ইউনূস তাকে ও তার মতো আরো অনেককে নিজের পকেট থেকে ২৭ মার্কিন ডলার ঋণ দেন যাতে তারা দারিদ্র্যের দুষ্টচক্র থেকে বের হবার উদ্দেশ্যে নিজেরাই ব্যবসা শুরু করতে পারে।’

এই কাহিনীর মূল উদ্দেশ্য ক্ষুদ্র ঋণের ধারণা কীভাবে জন্মলাভ করলো এবং এটা কীভাবে বহু মানুষের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন এনেছে সে সম্পর্কে শিশুদের শিক্ষা দেয়া। গ্রামীণ ব্যাংক ও ক্ষুদ্রঋণ কীভাবে সমাজের দারিদ্র্য দূর করতে এবং একটি অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী জাতি গড়ে তুলতে পারে- এই কাহিনীতে সেটাই তুলে ধরা হয়েছে।

ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের উচ্চ বিদ্যালয়গুলোর পাঠ্যবইতেও একই ধরনের কাহিনী ও প্রবন্ধ অন্তর্ভুক্ত হয়েছে যা থেকে নতুন প্রজন্ম ক্ষুদ্র ঋণ ও সামাজিক ব্যবসা সম্পর্কে এবং একটি দেশের উন্নয়নে এগুলোর ভূমিকা সম্পর্কে জ্ঞানলাভ করতে পারে।সুত্র কালের কণ্ঠ

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ