আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

কী ঘটেছিল সাংসদ মনিরুলের সংবর্ধনায়

নিজস্ব প্রতিনিধি

 

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় স্থানীয় সাংসদ অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনিরকে দেওয়া একটি সংবর্ধনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে (ভাইরাল) পড়েছে।

বৃহস্পতিবার উপজেলার এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের সাংসদ মনির।

ভিডিওটি এক লাখের ওপরে মানুষ দেখেছেন। মন্তব্যের ঘরে নানা সমালোচনাও করেছেন।

আসলে কী ঘটেছিল সেই দিনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে?

ভিডিওতে দেখা গেছে- সাংসদসহ অন্য অতিথিরা মঞ্চে বসে আছেন। এরই মধ্যে মাইকে ‘ধনও ধান্য পুষ্পে ভরা, আমাদের এই বসুন্ধরা…’ গানটি বেজে উঠতেই ফুল হাতে খালি পায়ে মঞ্চের দিকে এগোতে শুরু করে কয়েকজন শিক্ষার্থী। তাদের সবাই হাঁটছে মলিন মুখে, মাথা নিচু করে ছোট ছোট কদমে। এরপর গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ফুল হাতে করজোড়ে প্রণামের মতো মাথা নত করে অতিথিদের পায়ের গোড়ায় উঠছে আর বসছে তারা। আর পাশ থেকে একজন শিক্ষক ওই ছাত্রীদের তা শিখিয়ে দিচ্ছেন।

নাজমুল হোসেন নামের এক ব্যক্তির ফেসবুক পেজে প্রথমে ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। নাজমুল হোসেন জানান, এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানের ভিডিও এটি। প্রথমে এমপি সাহেব নিজেই আপলোড করেন। পরে তিনি ডিলিট করে দিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন নাজমুল হোসেন।

অতিথির সামনে দাঁড় করিয়ে, ছাত্রীদের এভাবে উঠবস করাকে ভালোভাবে নেয়নি এলাকাবাসী। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নিয়ে ফেসবুকে কড়া মন্তব্য করা হয়েছে। মেহেদী হাসান নামে একজন লিখেছেন, ‘শুধু ব্যক্তিগতভাবে নয়, সামাজিক এবং রাষ্ট্রীয়ভাবেও এ ধরনের অপকর্ম বন্ধ হওয়া উচিত। আর একই সঙ্গে এমন কাজের নীতি-নির্ধারকদেরও উপযুক্ত শাস্তি হওয়া দরকার।’

তবে ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত চৌগাছার বকসিপুর গ্রামের বাসিন্দা ও আইডিইবির যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নুরুল ইসলাম বলেন, ‘অতিথির প্রতি শ্রদ্ধা জানতেই এভাবে বরণ করা হয়েছে। মূলত গানটি কন্টিনিউ করার জন্য মেয়েরা ফুল হাতে, এভাবে উঠাবসা করেছে। ঘটনাটিকে ভিন্নভাবে ব্যাখা করা ঠিক হবে না।’

ঘটনার বিষয়ে জানতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাজাহান কবীরের মোবাইল ফোনে কয়েকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আর সাংসদ অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, তাকে কীভাবে অভ্যর্থনা জানানো হবে সেটা তিনি আগে থেকে জানতেন না। তাছাড়া বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ব্যাপার।সুত্র সমকাল

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ