আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :
«» জলাতঙ্ক থেকে বাঁচার উপায় «» সাহিত্যের আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে মোস্তফা কামালের ‘থ্রি নভেলস’ «» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাসের প্রতিবাদে পটুয়াখালীর বাউফলে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সামবেশ «» দুমকিতে ডাব খাওয়ার অপরাধে দু’ছাত্রকে মারধর,শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, ধাওয়া-পাল্টা «» কলাপাড়ায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রচার ও উন্নয়ন ভাবনা শীর্ষক মতবিনিময় সভা «» স্বরুপকাঠীতে শিক্ষক সমিতির ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত «» নদী বিষয়ক বইমেলা উদ্বোধন «» নরসিংদীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর উদ্বোধন «» ঢাকায় সাপের দংশনে প্রাণ গেল কলেজছাত্রের «» লন্ডনে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ক্ষতিপূরণ’র টাকা পেতে বাঁধা প্রদানসহ হত্যা, গুম, হুমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনদ

মোয়াজ্জেম হোসেন,পটুয়াখালী প্রতিনিধি,১১সেপ্টম্বর।।

দালাল কতৃক একাধিক মামলা দিয়ে হয়রানি করা ও ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিপূরণ’র টাকা পেতে বাঁধা প্রদান করাসহ হত্যা, গুম, হুমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তোভোগি পরিবার। মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কলাপাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটিতে মিলানায়তনে ওই স্ব-পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোসাঃ হামিদা বেগম।
তিনি লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন চিহ্নিত দালাল শওকত সরদার একের পর এক হয়রানি মুলক মিথ্যে মামলা দিয়ে আমাদের হয়রানি করছে। ইতোমধ্যে ধানখালীতে সরকারের উন্নয়নের ব্যাপক কর্মকান্ড চলছে। এ ইউনিয়নের মধুপাড়া মৌজা ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুত কেন্দ্র ভিত্তিক ভূমিঅধিগ্রহন করা হয়েছে। সেখানে আমার বাবার ১২কড়া জমির উপর বসত ভিটা রয়েছে। এছাড়া আরও ৩৫ কড়া অনাবাদি জমি আধিগ্রহন আওতায় চলে যায় । আমরা দু’বোন শশুর বাড়ীতে থাকায় ক্ষতি পুরনের টাকা উত্তোলনের জন্য স্থানীয় শাহ আলম সরদার’র পুত্র শওকত সরদারকে এল,এ অফিসের দায়িত্ব দেওয়া হয় । তিনি বলেন কাগজপত্র সংশোধন অফিসিয়াল কাগজসহ পার সষ্টিজের টাকা পরিশোধের জন্য সে নগদ এক লক্ষ টাকা ও আমাদের কাছ থেকে সাড়ে চার লাখ টাকার চেকের পাতা নিয়ে যায়। এক বছর পার হওয়ার পরও আমারা ক্ষতিপূরনের টাকা বুঝিয়া পাই নাই। উল্টো সে কিছুদিন পর আমার স্বামী বশির উদ্দিন রনির খাবার হোটেলে গিয়ে হামলা চালায়। এ নিয়ে কলাপাড়া থানায় অভিযোগও রয়েছে। যার সি,আর ১৬৪/১৮ নং মামলা চলমান আছে।
অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে দুইবার আটক করেছে। এবং প্রতিবার চেক ও টাকা ফেরত দেওয়ার মুচলেকা দিয়ে ছলচাতুরী করে ছার পেয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও র‌্যাব-৮ পটুয়াখালীতে অভিযোগ দিলে তাকে আটক করা হলে পূনরায় চেক ও টাকা ফেরত দেয়ার অঙ্গীকার করে আদালতের মাধ্যমে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পায়। পরবর্তীতে আমাদের পাওনা বুঝিয়ে না দিয়ে একের পর এক নামে বেনামে মিথ্যা ও হয়রানি ও অপহরণ মামলা দায়ের করছে বলে তিনি সংবাদ সম্মেলনে দাবী করেন।
এবিষয়ে শওকত সরদার’র সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায়নি।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ