আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

নরসিংদীর শিবপুরে ডাকাতের হাতে স্কুল  শিক্ষার্থী নিহত

মাহবুবুর রহমান, নরসিংদী প্রতিনিধিঃ
নরসিংদীর শিবপুর  উপজেলায় ডাকাতির সময় বাধা দেয়ায় নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে ডাকাত দলের সদস্যরা। এতে আহত হয়েছেন নিহতের মা ও ভাই। এসময় ডাকাতরা স্বর্ণালংকার, পাঁচটি মোবাইল সেটসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।
মঙ্গলবার ভোর রাতে শিবপুর উপজেলার মুন্সেফের চর গ্রামের নিহতের বোন শাহিনুরের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত স্কুলছাত্রীর নাম ফাতেমা (১৬)। আহতরা হলেন রাজিয়া (৫০) ও ভাই রায়হান (১৫)। আহতদের মধ্যে রাজিয়াকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া রায়হান নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
নিহতের বোন শাহীনুর জানান, সোমবার রাত চারটার দিকে মুখোশপড়া ১০-১২ জনের একটি ডাকাত দল বাড়ির গেইট ও দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর প্রবেশ করে। পরে ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে বাড়ির সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকা স্বর্ণালংকার ও মোবাইল সেট নিতে চাইলে ফাতেমা বাধা দেয়। এতে ডাকাতরা ক্ষিপ্ত হয়ে ফাতেমাকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে। এতে ফাতেমা ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এসময় ফাতেমার মা ও ভাই রায়হান এগিয়ে এলে তাদেরকেও ডাকাতরা ছুরিকাঘাত করে। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন আসতে দেখে ডাকাতরা মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়।
শিবপুর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুমিনুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে শিবপুর থানায় মামলা হয়েছে।
শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ