আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

বাংলাদেশ থামল ৫০৮ রানে

 অনলাইন ডেস্ক

 

 

প্রথম দিন শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৫৯ রান তোলে বাংলাদেশ। এরপর সাকিব-মাহমুদুল্লাহ দ্বিতীয় দিনেও ভালো শুরু করেন। সাকিবের আউটের পর মাহমুদুল্লাহ-লিটন ফিফটি পান। এরপর ফিরে যান লিটন। তবে মাহমুদুল্লাহ দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন। তার ব্যাটে পাঁচশ’ রান ছাড়িয়েছে টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে ৫০৮ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। টেস্ট ক্রিকেটে এটা বাংলাদেশের সপ্তম সর্বোচ্চ রান।

মাহমুদুল্লাহ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার সেরা ইনিংস খেলে ১৩৬ রানে আউট হন। নাঈম হাসান ১২ রানে অপরাজিত থাকেন।তার আগে লিটন দাস ৫৪ রান করে আউট হন। এর আগে দ্বিতীয় দিন সাকিব ফিরে যান ৮০ রান করে। প্রথম দিন শেষে তিনি ৫৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। সাকিব-মাহমুদুল্লাহ মিলে ১১১ রানের জুটি দিয়েছেন বাংলাদেশকে। এরপর মাহমুদুল্লাহ-লিটন গড়েন ৯২ রানের জুটি।

এটি মাহমুদুল্লাহর তৃতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি। আট বছরের অপেক্ষার পর জিম্বাবুয়ে সিরিজে সেঞ্চুরি পান মাহমুদুল্লাহ। এরপর এক টেস্ট পরেই আবার সেঞ্চুরি তুলে নিলেন তিনি। মেটালেন সাদমান-সাকিবের সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপ।

প্রথম দিন বাংলাদেশ দলের হয়ে অভিষেক টেস্টে ৭৬ রানের এক ইনিংস খেলেন সাদমান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের চার ব্যাটসম্যান পেয়েছেন পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংস। এছাড়া মিঠুন, মুমিনুল করেন ২৯ করে রান। সৌম্য ফেরেন ১৯ রান করে।

বাংলাদেশ এ ম্যাচে প্রথমবারের মতো কোন পেসার ছাড়া খেলতে নামে। বাংলাদেশ দলে আছেন চারজন নিয়মিত স্পিনার। দু’জন বাঁ-হাতি এবং দু’জন ডানহাতি স্পিনারে বল হাতে আক্রমণ করবে বাংলাদেশ দল।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ