আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

মেডিকেল পরীক্ষায় প্রতারকরা খেলো ডিজিটাল আইনের প্রথম মামলা

স্টাফ রিপোর্টার

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় প্রতারণার অভিযোগে আটক পাঁচজনের বিরুদ্ধে নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে। বুধবার রাতে ঢাকার যাত্রাবাড়ী ও বাড্ডা থেকে তাদের আটকের পর পল্টন থানায় তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়।

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, এটিই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথম মামলা।

বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে তুলে সাত দিনের রিমান্ড চাইলে মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদার দুদিনের হেফাজত মঞ্জুর করেন।

মোল্যা নজরুল বলেন, গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে আরও তথ্য বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন- কাওসার গাজী, সোহেল মিয়া, তরিকুল ইসলাম শোভন, রুবাইয়াত তানভির (আদিত্য) ও মাসুদুর রহমান ইমন।

সিআইডির এ বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, তারা ফেসবুকের মাধ্যমে প্রশ্ন একশভাগ কমনের নিশ্চয়তা দিয়ে বিকাশের মাধ্যমে বিভিন্নজনের কাছ থেকে টাকা আদায় করেছিল।

গত ৫ অক্টোবর মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা কেন্দ্র করে তারা এ তৎপরতা চালায় বলে জানান তিনি। তাদের কাছ থেকে ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে।

সিআইডির অভিযোগ, এ পাঁচজন গত বছরের প্রশ্ন এবং বাজারে থাকা বিভিন্ন বই থেকে প্রশ্ন সংগ্রহ করে নিজের মতো করে প্রশ্নপত্র বানিয়ে তা বিক্রি করে।

‘আসামিরা আগের বেশ কয়েকটি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কিন্তু এবার প্রশাসনের তৎপরতায় তাদের সে চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় অন্য পথ বেছে নেয়।’সুত্র যুগান্তর

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ