আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :
«» আনন্দমোহন কলেজ থেকে বোরকা পরা যুবক আটক «» অফিস সহকারীর কান্ড! বহিরাগত বখাটেদের হামলায় ২১ এসএসসি পরীক্ষার্থী আহত «» ইন্টারনেটের দাম কমছে «» কেন্দুয়ায় গড়াডোবা ইউনিয়নের অান্তঃবার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত «» এসএসসির প্রশ্ন যাবে অ্যালুমিনিয়ামের ফয়েলে তৈরি বিশেষ খামে «» ২২ জানুয়ারি থেকে সব কোচিং সেন্টার বন্ধ: শিক্ষামন্ত্রী «» পায়রাবন্দরে তাপ-বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আগুনে পুড়ে গেছে একটি প্রকল্প-প্রজেক্টের ওয়ার্কশপ «» সোনারগাঁয়ে ৪০ জন দরিদ্র শিক্ষার্থীকে স্কুল ড্রেস দিলেন শিক্ষানুরাগী আবু নাঈম ইকবাল «» স্বাস্থ্য সুরক্ষায় খেতে পারেন আদা «» স্বরুপকাঠীতে মাধ্যমিক শিক্ষক কর্মচারীদের শিক্ষক কল্যান সমিতির ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর জন ম্যাককেইন মারা গেছেন

অনলাইন ডেস্ক

 

যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সিনেটর জন ম্যাককেইন মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।
ম্যাককেইনের কার্যালয়ের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে রোববার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শনিবার পরিবারের সদস্যদের দ্বারা পরিবেষ্ঠিত অবস্থায় জন ম্যাককেইন মারা যান।
ভিয়েতনাম যুদ্ধে অংশ নেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর সাবেক এই সদস্য রিপাবলিকান পার্টি থেকে ২০০৮ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন। তবে বারাক ওবামার কাছে হেরে যান তিনি। ম্যাককেইন অ্যারিজোনা থেকে ছয়বার সিনেটর নির্বাচিত হন।
২০১৭ সালের জুলাইয়ে ম্যাককেইনের মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ার পর থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন ম্যাককেইন। তবে শুক্রবার তিনি তার চিকিৎসা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।
জন ম্যাককেইনের দাদা ও বাবা দু’জনেই মার্কিন নৌবাহিনীর চার তারকা অ্যাডমিরাল ছিলেন। দাদা ও বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই নৌবাহিনীতে যোগ দেন তিনি। ভিয়েতনাম যুদ্ধে তিনি নৌবাহিনীর ফাইটার প্লেনের পাইলট হিসেবে অংশ নেন। তবে যুদ্ধের সময় তার বিমানটি গুলি করে ভূপাতিত করা হলে তিনি ধরে পড়ে যান এবং ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত সেখানেই কারাবন্দি ছিলেন। এ সময়টাতে তিনি বিভিন্ন ধরনের নির্যাতনের শিকার হন, যা তার শারীরিক সক্ষমতা অনেকটাই কমিয়ে দেয়।
গত বছরের জুলাইয়ে তা বাম চোখের ওপরে জমে যাওয়া রক্ত অপসারণে অস্ত্রোপচার করার সময়েই তার মস্তিষ্কে টিউমারের অস্তিত্ব ধরা পড়ে। এরপর থেকেই নিয়মিত চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। তবে শুক্রবার চিকিৎসা বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এরপর শনিবারই তার মৃত্যু হলো।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ