আজ   ,
সংবাদ শিরোনাম :

শার্শায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন


জয়নাল আবেদীন।।ব্যাপক উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্যদিয়ে সারা দেশের ন্যায় এক যোগে যশোরের শার্শায় সরকারী-বেসরকারী ম্যাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদরাসা গুলোতে বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর প্রধানগণকে এ স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রযোজনীয় পদক্ষেপ নিতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস গুলোকে আগেই চিঠি দিয়েছেন। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীগণ তাদের মনোনীত প্রার্থী নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগে উৎগ্রীব হয়ে ভোট দিয়েছেন।
শিক্ষার্থীদের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হবে প্রতিটা প্রতিষ্ঠান থেকে ৮ সদস্যের স্টুডেন্ট কেবিনেট। ৬ষ্ট থেকে দশম শ্রেণির যেকোন ছাত্র ছাত্রী নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবে বলে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়। সে ক্ষেত্রে একজন ভোটার সর্বোচ্চ ৮টি ভোট দিয়ে তাদের ভোটার অধিকার প্রযোগ করেন। এর মধ্যে প্রতি শ্রেণিতে একটি করে এবং যেকোন তিন শ্রেণিতে সর্বোচ্চ দুটি করে ভোট দিয়েছে। প্রতি শ্রেণি থেকে একজন করে প্রতিনিধি নির্বাচিত হবে। পাঁচ শ্রেণিতে পাঁচজন নির্বাচনের পর তাদের মধ্য হতে সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত তিনজনকে নির্বাচিত করা হয়। যার মেয়াদ থাকবে ১ বছর। নির্বাচনের পর নির্বাচিত প্রতিনিধিরা প্রথম সভায় একজন প্রধান প্রতিনিধি মনোনিত করবে। একই সঙ্গে প্রত্যেকের দায়িত্ব বন্টন এবং সারা বছরের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করবে। পাশাপাশি প্রতিটা শ্রেণি থেকে দুইজন করে সহযোগী সদস্য মনোনীত করা হবে। যারা নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সহায়তা করবে। তাদের ভোটাধিকার থাকবে না। স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের সংরক্ষণ যথা-বিদ্যালয়, আঙ্গিনা ও টয়লেট পরিস্কার এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পুস্তক ও শিখন সামগ্রী, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, সাংস্কৃতি ও সহপাঠ কার্যক্রম, পানি সম্পদ, বৃক্ষ রোপণ ও বাগান তৈরী ইত্যাদি দিবস, অনুষ্ঠান উদযাপন, অভ্যর্থনা ও আপ্যায়ন এবং আইসিটি-এ ৮টি প্রধান দায়িত্বে ৮ জন নির্বাচিত প্রতিনিধি দায়িত্ব পালন করবে।
জেলার স্ব স্ব উপজেলা অফিস থেকে শিক্ষামন্ত্রনালয়ের একটি চিঠি প্রেরণ করেছেন। প্রধান শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষক ও সকল শ্রেণি শিক্ষকগণ স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন-২০১৯ সফল ভাবে সম্পন্ন করতে সার্বিক উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেছে বলে জানা যায়।
শার্শা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা চৌধুরী হাফিজুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ চলেছে। এই নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন, প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার এবং শৃংখলার দায়িত্ব বিদ্যালয়ের প্রধানরাই পালন করেছেন। 
বাগআঁচড়া মাধ্যমিক বিদ্যারয়ের প্রধান শিক্ষক খান আরিফ হাসান লিটন এবং উলাশী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আসাদুজ্জামান আশা বলেন, ভোট গস্খহণ খুবই শান্তিপূর্ণ ভাবে চলেছে। আশা করছি আগামীতে আরো নাড়া ফেলবে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন।
পাশ্ববর্তী কুলবাড়ীয়া বিকেএস মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মনসুর আলী জানান,সেখানে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা মধ্যে দিয়ে ভোট গ্রহন হয়েছে।সকাল থেকে শুরু হওয়া ক্যাবিনেট নির্বাচনে সেখানে ভোটার ছিলেন ২৮০ জন। প্রার্থীর সংখ্যা ১২ জন। এর মধ্যে ৭ জন পুরুষ ও মেয়ে ৫ জন। সুষ্ঠ নির্বাচন ও নির্বাচনে প্রথম হওয়ায় খুব আনন্দিত বলে জানালেন দশম শ্রেনীর ছাত্র খালিদ।      

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বুধবার সচিবলায়ের সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ২০১৫ খ্রীঃ এর ৮ আগষ্ট পরীক্ষামুলক ভাবে প্রথম বারের মতো মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ধারাবাহিক ভাবে প্রতিবছর এ নির্বাচন হয়ে আসছে। শিশুকাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়াসহ কয়েকটি উদ্দেশ্য নিয়ে এ নির্বাচন করা হচ্ছে। 
চলতি বছরে যশোরের শার্শা উপজেলায় ৩৪ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ২০ দাখিল মাদরাসায় স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।

শর্টলিংকঃ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের।


ঘোষনাঃ