ঢাকাWednesday , 7 October 2020
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অপরাধ ও দুর্নীতি
  4. আইন ও আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. খেলাধুলা
  7. গণমাধ্যম
  8. চাকুরির খবর
  9. জাতীয়
  10. তথ্য প্রযুক্তি
  11. ধর্ম
  12. নারী ও শিশু
  13. বিনোদন
  14. মুক্তিযুদ্ধ
  15. রাজনীতি

বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি নিষ্পত্তির সহজ সমাধান   

Link Copied!
ad

  বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি আজ গণদাবিতে পরিনত হয়েছে। যুগের পর যুগ একই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে বেসরকারি শিক্ষকরা আজ ক্লান্ত পরিশ্রান্ত। দূর দূরান্তে চাকরি করে তারা নানাবিধ সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। এসব সমস্যা সমাধানের  জন্য তারা দীর্ঘ দিন ধরে  বদলির দাবি করে আসছেন।
   বদলি প্রত্যাশী বেসরকারি শিক্ষদের দাবি, তৃতীয় ধাপের নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তির আগেই যেন শূন্য পদে বদলির গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। তাছাড়া  নিয়োগের গণবিজ্ঞপ্তির আগে বদলির দাবি পূরন করা না হলে নতুনদের চাকরির সুযোগ নষ্ট হবে। কারন, গত দু’ধাপে সর্বোচ্চ মার্কস ধারীরা নিয়োগ পেয়েছেন। তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে এসব প্রার্থীরা তাদের পছন্দের প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার জন্য পুনরায়  আবেদন করবেন।  তারা আবারো নির্বাচিত হবেন। বর্তমান নীতিমালা অনুযায়ী নিবন্ধন করা ইনডেক্সধারীরা আজীবন আবেদন করতে পারবে। তাদের ক্ষেত্রে বয়সের কোনো বার নাই। এতে চাকরির সুযোগ নষ্ট হবে নতুনদের। তাই নতুনদের ব্যপক ভাবে চাকরির সুযোগ দিতে হলে আগে বদলি কার্যকর করতে হবে।
   বর্তমানে এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের সকল তথ্য ইএমআইএস /মেমিসে রয়েছে। আর এখন এমপিওভুক্তির প্রক্রিয়াও অনলাইনে। তাই, সফটওয়্যারের মাধ্যমে বদলির কার্যক্রম সম্পন্ন করা একটা সহজ বিষয়ে পরিনত হয়েছে। আপাতত কোনো রকম ব্যয় ছাড়াই খুব সহজে বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি নিম্নোক্ত ভাবে সম্পন্ন করা যেতে পারেঃ
   প্রথমতঃ পারস্পরিক/মিউচুয়াল বদলি। সেক্ষেত্রে প্রয়োজন শুধু এমপিও ট্রান্সফার। দুজন শিক্ষকের মধ্যে সমঝোতা হলে, উভয় প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে অনলাইনে আবেদন করে এমপিও ট্রান্সফার করে নিতে পারে।
   দ্বিতীয়তঃ শূন্য পদে বদলি। এক্ষেত্রে একটি পদের বিপরীতে একাধিক প্রার্থী হলে নিম্নোক্ত ভাবে প্রার্থী বাছাই করা যেতে পারে-
  * একাডেমিক কোয়ালিফিকেশনের প্রতিটি A+, A গ্রেড/প্রথম বিভাগের জন্য ৩ পয়েন্ট। A, A-গ্রেড/ দ্বিতীয়  বিভাগের জন্য ২ পয়েন্ট। আর অন্যান্য গ্রেড/ তৃতীয় বিভাগের জন্য ১ পয়েন্ট নির্ধারিত থাকবে। সংশ্লিষ্ট পদের কাম্য যোগ্যতার চেয়ে অতিরিক্ত যোগ্যতা হিসাবের আওতায় আসবে না।
  *  চাকরির অভিজ্ঞতার উপর প্রতি এক বছরের জন্য ১ পয়েন্ট। সর্বোচ্চ ১৬ পয়েন্ট। ১৬ বছরের অতিরিক্ত অভিজ্ঞতা হিসাবের আওতায় আসবে  না।
  * একাধিক প্রার্থী যদি একই পয়েন্টের অধিকারী হয় তাহলে বয়সের  ভিত্তিতে বাছাই করা যেতে পারে।
  *  স্বামী স্ত্রী উভয়ে চাকরিজীবী  হলে তাদেরকে অগ্রাধিকার দিতে হবে।
  * স্ব স্ব উপজেলার প্রার্থীদের অগ্রাধিকার থাকবে। তবে, সংশ্লিষ্ট উপজেলার প্রার্থী পাওয়া না গেলে পার্শ্ববর্তী উপজেলা থেকে প্রার্থী নেয়া যেতে পারে। জেলার বাইরের কেউ আবেদন করতে পারবে না।
    বেসরকারি শিক্ষকদের বাড়ি ভাড়া ১০০০ টাকা।  আর  এই মুহুর্তে বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি করার কোনো চিন্তা ও সরকারের নাই। তাই আপাতত কোনো ব্যয় ছাড়া ই উপরোক্ত নিয়মে বদলি বাস্তবায়ন করা যায়।                            বদলি কার্যকর হলে এতে যেমন অসংখ্য সমস্যার সমাধান হবে,  তেমনি বেসরকারি শিক্ষা ব্যাবস্থায় সঞ্চারিত হবে নতুন গতি। বিষয়টি সম্পর্কে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
লেখক :
মুহাম্মদ জসিম উদ্দীন
প্রভাষক,
জিরাইল আজিজিয়া ফাজিল মাদরাসা
বাকেরগঞ্জ, বরিশাল।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।